Uncategorized

সংঘাত নয়, সীমান্তে রুটিন টহলদারি করছে চিনের সেনাবাহিনী: জানাল বেজিং – Kolkata24x7

বেজিং: একে করোনায় নাভিশ্বাস ফেলার যোগার। তার উপর নতুন করে সংঘাত। যেন একে রামে রক্ষা নেই, তার ওপর দোসর লক্ষণ। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যে এমনই অবস্থা ভারত-চিনের। আর গত কয়েকদিন ধরেই নতুন করে সামনে এসেছে ভারত- চিনের সংঘাত।

জানা গিয়েছে, সিকিম এবং লাদাখ সীমান্তে সেনা সংঘাতের পর চপার উড়িয়েছে চিনের সেনা বাহিনী। যার ফলে ভারত-চিন সীমান্তে তৈরি হয়েছে চাপা উত্তেজনা। জারি রয়েছে হাই অ্যালার্ট। এই অবস্থায় নিজেদের অবস্থান নিয়ে সরাসরি সংবাদ মাধ্যমের কাছে মুখ খুলেছেন চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাউ লি জিয়াং।

এদিন সংবাদ মাধ্যমের কাছে তিনি বলেন, ” কোনও সংঘাত নয়, সীমান্তে রুটিন টহলদারি করছে সেনাবাহিনী। ভারত-চিন সীমান্ত নিয়ে কোনও দ্বন্ধ নেই। বরং আমরা সবসময় প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখতে চাই।”

লি জিয়াং আরও বলেন,” চিনা সেনা লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলে(এলএসি) নিয়ম মাফিক পরিদর্শন চালাচ্ছে। এরসঙ্গে ভারতীয় সীমান্ত সংঘাতের কোনও বিষয় নেই। আমরা সীমান্তে শান্তি বজায় রাখতে সদা সচেষ্ট।”

যদিও, করোনা আবহের মধ্যে চিনের সঙ্গে ভারতের এই সংঘাত চলতি মাসের ৫ থেকে ৬তারিখ নাগাদ শুরু হয়েছে। যা এখনও বর্তমান। তবে চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্রের আরও দাবি, চিনা সৈন্যরা ভারতের সঙ্গে সবসময় শান্তি সংহতি এবং সমঝোতা বজায় রাখতে চাই।

প্রসঙ্গত, লাদাখের কাছে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর চিনা চপার দেখা যাওয়ায় ভারত এবং চিনা জওয়ানদের মধ্যে হঠাৎই তিক্ততা তৈরি হয়। গত সপ্তাহের ৫-৬তারিখ লাদাখ সীমান্তে চিনা চপার দেখা যাওয়ায় ভারতীয় যুদ্ধ বিমান ওই একজোড়া চপারকে ধাওয়া করে।

এই ঘটনার পরই উওর সিকিম সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ রেখায় হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন ভারত এবং চিনা জওয়ানরা। যদিও চিন দাবি করে এসেছে তাদের চপার সীমান্তে ঘোরাঘুরি করলেও তা নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করেনি।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: