Uncategorized

লুকিয়ে বাঙ্গি খেয়ে পরিবারের কাছে অপমানিত হলো বাঙ্গিখোর যুবক

বাঙ্গি এমন এক ফল যা বেশিরভাগ মানুষই অপছন্দ করে। গুটিকয়েক মানুষ, যারা বাঙ্গি পছন্দ করে তাদের সমাজের কাছে হতে হয় হেয়-প্রতিপন্ন। সবাই তাদের দিকে আঙ্গুল তুলে বলে, ‘ওই দেখ বাঙ্গিখোর’!

তবে যারা বাঙ্গি পছন্দ করে, তাদের কাছে এই জিনিস প্রায় অমৃততুল্য। তাই শত অপমান আর অবজ্ঞা উপেক্ষা করে হলেও বাঙ্গি তারা খাবেই। এমনই এক বাঙ্গিখোর মিরপুরের সোহেল।

বাঙ্গি তার খুবই পছন্দের জিনিস, কিন্তু পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবদের সামনে লজ্জায় এই তথ্য সে কখনো প্রকাশ করেনি। বরঞ্চ সবার সাথে তাল মিলিয়ে সোহেলও অন্যান্য বাঙ্গিখোরদের অপমান অপদস্থ করতো।  কিন্তু গতকাল রাতে সোহেলের সাথে ঘটে গেলো এক দুর্ঘটনা।

কাজের বুয়া সোহেলের ঘর ঝাড়ু দেয়ার সময় খাটের নিচে একটা তাজা বাঙ্গির বিঁচি কুড়িয়ে পায়। মুহূর্তের মধ্যেই ওই বিঁচি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়ে যায় সোহেলদের বাসায়। সোহেলকে নিয়ে ছি-ছি করতে শুরু করে তার বাবা-মা, ভাই-ভাবী, প্রতিবেশী ভাবী ও কাজের বুয়া।

তাকে বারবার প্রশ্নবাণে বিদ্ধ করা হয়। কোত্থেকে এলো ওই বিঁচি? তাহলে কি সোহেল একজন বাঙ্গিখোর? রাতের আঁধারে লুকিয়ে লুকিয়ে বাঙ্গি খায় সে?

সোহেল অবশ্য বাঙ্গি খাওয়ার কথা অস্বীকার করে বলে, এই বিঁচি আসলে কাজের বুয়ার চক্রান্ত। সোহেলের উপর প্রতিশোধ নিতেই সে এই ষড়যন্ত্র করেছে। তবে কিসের প্রতিশোধ জানতে চাইলে সোহেল কেনো সদুত্তর দিতে পারেনি।

তাই সবাই ধরে নেয়, আসলেই সোহেল একজন বাঙ্গিখোর। আপাতত সোহেলের সাথে বাসার কেউ কথা বলছে না।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: