Uncategorized

মালিঙ্গাকে মিস করবে মুম্বই: রোহিত – Kolkata24x7

আবুধাবি: মরু শহরে করোনাভাইরাস আবহে শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে প্রতিক্ষীত আইপিএল থার্টিন৷ চলতি আইপিএলে অনেক তারকা ক্রিকেটারই ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন৷ যাঁদের মধ্যে অন্যতম মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের তারকা পেসার লসিথ মালিঙ্গা৷ তাঁকে মিস করবে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়ে দেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা৷

করোনার কারণে প্রাক-মরশুম অনলাইন সাংবাদিক সম্মেলনে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক বলেন, আমি মনে করি, মলিঙ্গার জুতোয় পা-গলানো কারোর পক্ষে সহজ হবে৷ তিনি ছিলেন মুম্বইয়ের ম্যাচ-উইনার। আমি বহুবার বলেছি, যখনই আমরা সমস্যায় পড়েছিল, মালিঙ্গা সেখান থেকে আমাদের উতরে দিয়েছেন৷ মালিঙ্গার অভিজ্ঞতা আমরা মিস করব৷ ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে অতীতে যা পারপরম্যান্স করেছে, তা অবিশ্বাস্য৷ দুর্ভাগ্যজনক যে এই বছর মালিঙ্গা দলের একজন হতে পারছে না৷’

ব্যক্তিগত কারণে চলতি বছরের আইপিএল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি পেসার৷ তাঁর অবিশ্বাস্য ‘অতীতের পারফরম্যান্সের কারণে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন দলের তাঁকে মিস করাটাও স্বাভাবিক৷ ৩৭ বছর বয়সি মালিঙ্গা হলেন আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি৷ তাঁর দখলে রয়েছে ১৭০টি উইকেট৷ চারবারের চ্যাম্পিয়ন দলের অন্যতম সদস্যকে না-পাওয়াটা স্বাভাবিকভাবেই দলের কাছে বড় ধাক্কা৷ ১৯ সেপ্টেম্বর টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স খেলবে গতবারের রানার্স চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে৷ অর্থাৎ প্রথম ম্যাচেই আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয় সফল দুই অধিনায়কের মস্তিষ্কের লড়াই৷

মালিঙ্গা পরিবর্ত হিসেবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স নিয়েছে অজি পেসার জেমস প্যাটিনসনকে৷ দলের বোলিং লাইন-আপ নিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ক্যাপ্টেনের বক্তব্য, ‘আমরা জেমস প্যাটিনসনকে পেয়েছে৷ এছাড়াও দলে ধবল কুলকার্নি, মহসিন খান রয়েছে৷ তবে এই নামগুলি দিলে আমরা মালিঙ্গাকে প্রতিস্থাপন করতে চাইছি। যদিও মালিঙ্গা মুম্বইয়ের পক্ষে যা করেছে, তার তুলনা হয় না৷’

বুধবারই রোহিতকে সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে বিপজ্জনক ব্যাটসম্যান বলেছেন প্রাক্তন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ক্যাপ্টেন ও কোচ রিকি পন্টিং৷ এদিন দলে নিজের ভূমিকা ব্যাখ্যা করেন রোহিত৷ তিনি বলেন, ‘আমি গত বছরও পুরো টুর্নামেন্টটে ওপেন করেছিলাম৷ এ বছরও আমি তা চালিয়ে যাব। তবে দলের প্রয়োজনে সব জায়গাতেই আমার খেলতে অসুবিধা নেই৷’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি যখন ভারতের হয়ে খেলি, তখনও আমার পক্ষ থেকে ম্যানেজমেন্টের কাছে বার্তা একই থাকে৷ কোনও দরজা বন্ধ করবেন না, সমস্ত বিকল্প খোলা রাখুন এবং আমি এখানেও এটি করব।’

ভারতের সাদা বলের সহ-অধিনায়কও অনুভব করেছিলেন যে, কন্ডিশনের মানিয়ে নেওয়ার উপরই তাঁর দলের ভাগ্য নির্ভর করছে৷ রোহিত বলেন, ‘আমাদের পক্ষে চ্যালেঞ্জ হ’ল আমাদের এখানে অবস্থার সঙ্গে দ্রুতু খাপ খাইয়ে নেওয়া৷ যা সম্ভবত আমাদের কারোই অভ্যস্ত নয়৷ কারণ আমাদের গ্রুপের অনেক ক্রিকেটারই এখানে কোনও দিন খেলেনি।’ ২০১৪ সালে ভারতে সাধারণ নির্বাচনের জন্য আইপিএলের অর্ধেক টুর্নামেন্ট হয়েছে আমিরশাহীতে৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: