Uncategorized

চরম প্রত্যাঘাত, বিদ্যুৎ প্রকল্পগুলিতে চিনের নাক গলানো বন্ধ করতে চলেছে ভারত – Kolkata24x7

নয়াদিল্লিঃ  লাদাখে ২০ সেনা শহিদের বদলা নিতে শুরু করেছে ভারত। হাতে না, বেজিংকে ভাতে মারার ছক মোদী সরকারের। অর্থনৈতিকভাবে চিনকে কোনঠাসা করতে শুরু করেছে ভারত। একের পর এক ভারতীয় প্রকল্প থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে চিনা সংস্থাকে। ইতিমধ্যে বিএসএনএল, এনটিএমএলের ৪জি আপগ্রেডেশনের সমস্ত কাজে যাতে চিনা সামগ্রী ব্যবহার না হয় সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

রেলের প্রকল্প থেকেও চিনা সংস্থাকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। শুধু কেন্দ্রীয় সরকারই নয়, রাজ্যগুলিও চিনের ভূমিকা নিয়ে অসন্তুষ্ট। মহারাষ্ট্র সহ একাধিক রাজ্যে চিনের যে সমস্ত বিনিয়োগ রয়েছে সেই চুক্তি বাতিল করা হচ্ছে। সর্বস্তরে চিনকে বয়কটের স্লোগান ক্রমেই তীব্র হচ্ছে। এই বয়কট কার্যকর করতে দেশজুড়ে চরম পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করছে মোদী সরকার।

এবার একের পর এক কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে মোদী সরকার। জানা যাচ্ছে, দেশের বিদ্যুৎ প্রকল্পগুলিতে যাতে চিনা সংস্থাকে আর প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কেন্দ্র। ইতিমধ্যে বিদ্যুৎমন্ত্রী রাজকুমার সিং এই মর্মে আভাস দিয়েছেন। বিশেষ করে দেশের প্রথম সারির বণিকসভাগুলিকে এই বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে।

সরকার স্থির করেছে, সরকারি ও বেসরকারি স্তরে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র গড়ে তোলার উপর বিশেষ জোর দেওয়া হবে আগামিদিনে। যদিও দেশের বিদ্যুৎ প্রকল্পগুলিতে ইতিমধ্যে একঝাঁক চিনের সংস্থা বিনিয়োগ করেছে। শুধু বিনিয়োগই নয়, আরও লগ্নি করার প্রস্তাব দিয়েছে। চিনের সোলার প্যানেল সরবরাহকেও যুক্ত করা হয়েছে এই লগ্নির সঙ্গে।

চিনের সংস্থাগুলির সম্মিলিত প্রস্তাব হল তারা ৪৮ গিগা ওয়াট তাপবিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। ইতিমধ্যেই চিনের সংস্থা যে প্রকল্পগুলিতে যুক্ত হয়েছে এবং যেগুলির সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে, এই দুই ক্ষেত্রেই চিনের থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ভারত। শুধু চিনকে বয়কট নয়, এর প্রধান কারণ সতর্কতাও। এমনটাই প্রকাশিত খবরে জানাচ্ছে বাংলা এক সংবাদমাধ্যম। লাদাখে ভারত-চিন সংঘাতের পর থেকে চিনের হ্যাকারা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। লাগাতার ভারতকে টার্গেট করছে।

রিপোর্ট বলছে, গত কয়েকদিনে কয়েক হাজার বার ভারতের একাধিক স্যাক্টরে হামলা চালাচ্ছে চিনের হ্যাকাররা। এমনকি, ভারতের বিভিন্ন অর্থনীতিক সাইট সহ গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবগুলি চিনা হ্যাকরদের টার্গেট হয়ে উঠছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, কোনওরকম ম্যালওয়্যার আক্রমণ যদি হয়, তাহলে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সরবরাহ বিপর্যস্ত হয়ে যেতে পারে।

সুতরাং স্ট্র্যাটেজিক প্রতিটি সেক্টর থেকেই চিনকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ভারত। জানা যাচ্ছে, এই বিষয়ে ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গকেও সতর্ক করা হয়েছে। যদি কোনও ধরনের ম্যালওয়ার অ্যাটার্ক হয় তাহলে বিপদ ঘটতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

পরিবেশের বন্ধুরা, স্কুলেই চলছে সবুজ বাঁচানোর লড়াই।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: