Uncategorized

করোনা ঝুঁকির মধ্য দিয়েই বৃদ্ধার জীবন বাঁচাতে অফিসেই র’ক্ত দিলেন ইউএনও সজল

‘বিশ্ব মা দিবসে’ এক বৃদ্ধ মাকে র’ক্ত দিয়ে অনুকরণীয় নজির স্থাপন করলেন ময়মনসিংহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শেখ হাফিজুর রহমান সজল।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ময়মনসিংহ জিলাস্কুল রোডের মরহুম আলিম উদ্দিনের ছেলে মঈন উদ্দিন জুনুর মা সৈয়দা জামিমা আক্তার (৮০) ছয় বছর ধরে কিডনি রোগে ভুগছেন। চিকিৎসক হঠাৎ পরামর্শ দেন জামিমা আক্তারের ডায়ালাইসিস করতে হবে এবং তার জন্য জরুরি ভিত্তিতে র’ক্ত লাগবে। র’ক্তে’র ও-পজিটিভ।

মঈন উদ্দিন জানান, ১০ মে বিশ্ব মা দিবসে দুপুরের দিকে সমাজকর্মী আলী ইউসুফকে র’ক্তে’র প্রয়োজনের ফোন দিই। আলী ইউসুফ তখন ইউএনও অফিসেই ছিলেন। বিষয়টি জেনে ইউএনও সজল জানান, করোনার ঝুঁ’কির মধ্যে যদি অন্য কোথাও দাতা জোগাড় না হয় তা হলে তিনি র’ক্ত দিতে রাজি আছেন।

ইউএনও আলী ইউসুফকে বলেন, ‘আজ বিশ্ব মা দিবস। এই দিনে একজন মায়ের জীবন বাঁচাতে র’ক্ত দিতে পারাটা এক বিরল সৌভাগ্যের বিষয় হবে।’ আলী ইউসুফ জানান, করোনার প্রাদুর্ভাব, রমজান মাস এবং স্বল্প সময়ের কারণে কোথাও দাতা খুঁজে না পেলে তিনি বিষয়টি ইউএনওকে জানান। সোমবার দুপুরেই র’ক্ত প্রয়োজন, ফোনে এই খবর শুনেই ইউএনও বলন, ‘ঠিক আছে ব্যবস্থা করুন, আমি দুপুরেই র’ক্ত দেব।

দুপুরে ইউএনও তার অফিসে রোজা রাখা অবস্থাতেই র’ক্ত’দান করেন। এরপর বৃদ্ধ মায়ের ডায়ালাইসিস সম্পন্ন হয় এবং বর্তমানে তিনি সুস্থ আছেন। ইউএনও সজল জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে প্রথম বর্ষে থাকাকালীন ২০০১ সালে সাভারে ধ’র্ষ’ণের শিকার এক শিক্ষার্থীর জীবন বাঁচাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথম র’ক্ত দান করেন তিনি। চাকরি জীবনে নানা কর্ম-ব্যস্ততার মধ্যেও এ পর্যন্ত ২৫ বার র’ক্ত দিয়েছেন তিনি।

এ ঘটনা জেনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাবেক সভাপতি ফেরদৌস আরা মাহমুদা হেলেন বলেন, ‘একজন অসুস্থ মায়ের জন্য বাংলাদেশ সরকারের একজন সরকারি কর্মকর্তার বিরল ভালোবাসার অনন্য নজির ও সাক্ষী হয়ে থাকবে এই র’ক্ত’দানের ঘটনা।

ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘সজল একজন বৃদ্ধ মায়ের জীবন বাঁচাতে র’ক্ত দিয়ে যে মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন, এজন্য আমরা গর্বিত। প্রশাসনিক পর্যায়ে তার এই মহতী কাজ অনন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে।

শিক্ষা উপমন্ত্রীর মা হাসিনা মহিউদ্দিন করোনায় আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন

করোনায় আ’ক্রা’ন্ত শিক্ষা উপমন্ত্রীর মা- চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রয়াত মেয়র এবং আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হাসিনা মহিউদ্দিনের শরীরে করোনা ভাই’রাস শনাক্ত হয়েছে। মঙ্গলবার সীতাকুন্ডের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা শেষে তার শরীরে করোনা ভা’ইরা’স শনাক্ত হয়। এর আগে তার ছোট ছেলে বোরহানুল এইচ সালেহীনের শরীরেও করোনা ভা’ইরা’স শনাক্ত হয়েছিলো।

৬৫ বছর বয়সী হাসিনা মহিউদ্দিন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর মা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর জামাতা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আক্তার চৌধুরী।

তিনি বলেন, ছেলে সালেহীনের করোনা পজেটিভ আসার পর হাসিনা মহিউদ্দিনসহ বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের নমুনা পরীক্ষা করানো হয়। এতে তিন জনের করোনা পজেটিভ আসে। যদিও তাদের কোনো উপসর্গ নেই।

এর আগে গত রোববার সাবেক সিটি মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন করোনা ভা’ইরা’সে আ’ক্রা’ন্ত হন। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের তিনটি ল্যাব ও কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে মোট ৪৭৯ টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলার ৮৫ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১ টায় চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। চট্টগ্রামের বিআইটিআইডিতে ২৪৮ টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলায় ২৭ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ২৫ জন নগরের বিভিন্ন এলাকার এবং ২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে ১২২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫১ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একজন পুরোনো রোগীসহ ৪৮ জন চট্টগ্রাম নগরের এবং ৪ জন বিভিন্ন উপজেলার। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ২০টি পজেটিভ পাওয়া যায়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় ২ জন রয়েছেন।

অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে চট্টগ্রাম জেলার ৩৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জনের শরীরে করোনা ভা’ইরা’স শনাক্ত করা হয়। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনা ভা’ইরা’সে আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪১৭ জনে। মৃ”ত্যু বরণ করেছেন ২৩ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৯ জন।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: