Uncategorized

করো’নার নতুন আতঙ্ক: হঠাৎ মা’রা যাচ্ছেন!

সাংবাদিক সুমন মাহমুদ, লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন করো’না (কোভিড-১৯) টেস্টের জন্য। সেখানেই হঠাৎ করে মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

এমন নয় যে, তার অবস্থা সংকটাপন্ন ছিল। কারণ অবস্থা খুব বেশী খা’রাপ হলে তিনি লাইনে দাঁড়াতে পারতেন না। জলজ্যান্ত সেই মানুষটাই হঠাৎ করে মা’রা গেলেন।

এই একটি ঘটনা নয়, এমন বহু ঘটনা ঘটছে। করো’না রোগীরা ফুসফুস আ’ক্রান্ত হয়ে আস্তে আস্তে মা’রা যায়, এরকম প্রবণতায় আজকাল একটু পরিবর্তন আসছে।

চিকিৎসকরা লক্ষ্য করছেন যে, করো’না রোগীদের আকস্মিকভাবে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট বা কিডনি ফেইলিওর হচ্ছে। এই ঘটনাগুলো এখন ঘটছে এবং এটা উদ্বেগজনক।

বাংলাদেশে এরকম একাধিক ঘটনা ঘটেছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, করো’নার উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর রোগীর দ্রুত কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট কিডনি বিকল হয়ে মৃ’ত্যুর মুখে পতিত হচ্ছেন।

চিকিৎসকরা বলছেন, এটা একটা নতুন উপসর্গ এবং এটা আতঙ্কের।

চিকিৎসক এবং বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, তারা যেটা প্রক্ষেপণ করেছিলেন বাংলাদেশে মে’র শেষ পর্যন্ত করো’নার পিক সিজন থাকবে এবং জুন থেকে আস্তে আস্তে কমতে থাকবে, সেটি এখন আর বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য নয়। বিশেষজ্ঞরা বরং মনে করছেন যে, পুরো জুন মাসজুড়েই বাংলাদেশে করো’নার সংক্রমণ বাড়তে পারে। জুলাই মাস পর্যন্ত করো’না বাংলাদেশকে নাস্তানাবুদ করবে।

চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা এটাও মনে করছেন যে, বাংলাদেশে কম মৃ’ত্যুর হার নিয়ে যে আত্মতুষ্টি, সেটাও কিছুদিনের মধ্যে নষ্ট হয়ে যাবে। কারণ বাংলাদেশে খুব শিগগিরই মৃ’ত্যুর হারও বাড়বে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Articles

Back to top button
Close
%d bloggers like this: